1. admin@nbcbangla.com : nbcbangla :
সাউথইষ্ট ব্যাংক এর Cash Express Remit Card এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য সুভিদা এবং অসুভিধা গুলো জেনেনিন - nbcbangla
October 28, 2021, 5:01 pm

সাউথইষ্ট ব্যাংক এর Cash Express Remit Card এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য সুভিদা এবং অসুভিধা গুলো জেনেনিন – nbcbangla

  • Update Time : Tuesday, August 25, 2020

সাউথইষ্ট ব্যাংক এর Cash Express Remit Card

সুবিধাঃ
সাউথইষ্ট ব্যাংক এর যেকোন ব্রাঞ্চ থেকে এভেইলিবিলিটি সাপেক্ষে এই কার্ডটি সম্পূর্ণ ফ্রি’তেই নেয়া যায়।

সাউথইষ্ট ব্যাংক এর যেকোন শাখায় গিয়ে ন্যাশনাল আইডি কার্ডের ফটোকপি ও ২ কপি রঙ্গিন ছবি জমা দিয়ে কার্ডটি নেয়ার ফরম ফিলাপ করে সাথে সাথেই কার্ড ও কার্ড পিন তাৎখনিক নেয়া যায়।

কার্ড এক্টিভেশনঃ
সাউথইষ্ট ব্যাংক এর নিজস্ব এটিএম বুথ থেকে পিন চেইঞ্জ করবার সাথে সাথেই কার্ডটি এক্টিভ হয়ে থাকে, পিন চেইঞ্জ না করা পর্যন্ত কার্ডটি এক্টিভ হয় না।

চার্জঃ
এই কার্ডটির কোন এককালীন চার্জ, বাৎসরিক নবায়ন/রিনিও চার্জ, বাৎসরিক একাউন্ট মেনটেনেন্স চার্জ, মেসেজ এলার্ট নোটিফিকেশন চার্জ, কিংবা অন্যান্য কোন চার্জ নেই।
(ব্যাংক এর দেয়া বর্তমান তথ্যমতে, তবে যেকোন নিয়মই সময়ে সময়ে পরিবর্তনশীল)

কার্ডটির কোন এক্সপায়ার ডেইট নেই, তাই এই রেমিট কার্ডটির মেয়াদ হচ্ছে আজীবন।

এই কার্ডে বিদেশ থেকে আগত রেমিটেন্স ডিপোজিট হলে ফোনে মেসেজ এলার্ট নোটিফিকেশন এসে যায় এবং এই মেসেজ এলার্ট নোটিফিকেশনের জন্যে কোনই বাৎসরিক চার্জ নেই।

সাউথইষ্ট ব্যাংক এর নিজন্ব বুথ এবং NPSB (ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ বাংলাদেশ) এর আওতাধীন যেকোন ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা রেমিটেন্স উত্তোলন করা যায়।

দেশীয় POS মেশিনে এই কার্ড ইনসার্ট করে, পিন নাম্বার ইনপুট করে টাকায় পেমেন্ট সম্পন্ন করে কেনা-কাটা করা যায়।

সাউথইষ্ট ব্যাংক এর নিজস্ব এটিএম বুথের মাধ্যমে এই কার্ডের মধ্যে থাকা টাকা, সাউথইষ্ট ব্যাংকের অন্য কারোর একাউন্টে তাৎখনিক টাকা ট্রান্সফার করে দেয়া যায়।

তাছাড়া কার্ডটা কোন কারনে সাথে না থাকলে, কার্ডের তথ্য নিকটস্থ সাউথইষ্ট ব্যাংক এর যেকোন ব্রাঞ্চে গিয়ে প্রদান করে ক্যাশ কাউন্টার থেকে কার্ডে আগত রেমিটেন্স তাৎখনিক উত্তোলন করা যায়।

এই কার্ড অথবা এই কার্ডের পিন নাম্বার হারিয়ে গেলে, সাথে সাথেই কার্ডটি ক্যানসেল করে দিয়ে আরেকটি নতুন কার্ড ব্রাঞ্চ থেকে নেয়া যায় এবং পূর্বের হারানো কার্ডের টাকার ব্যালেন্স ইস্যুকৃত নতুন এই রেমিট কার্ডে সংযুক্ত করে নেয়া যায়।

এটা ভিসা কিংবা মাষ্টারকার্ড গেটওয়ের কার্ড নয়, এটা সাউথইষ্ট ব্যাংক এর নিজস্ব ব্র্যান্ডের কার্ড।

অসুবিধাঃ
সাউথইষ্ট ব্যাংক এর ব্রাঞ্চে গিয়ে এই কার্ডে টাকা ডিপোজিট করা যায় না, যেহেতু এটা রেমিটেন্স আনয়নকারী কার্ড।

বাংলাদেশ থেকে অন্যান্য ব্যাংক এর এপ/ ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে EFTN করে এই কার্ডে কোন টাকা কিংবা ডলার ডিপোজিট করা যাবে না।

আমি পরীক্ষামুলক ভাবে EFTN করেছিলাম, কিন্তু ১ দিন পরেই সেন্ডার ব্যাংকে টাকা অটোমেটিক রিফান্ড চলে এসেছে।

তবে অন্যান্য ব্যাংক এর আন্তঃব্যাংকিং স্বয়ংক্রিয় তাৎখনিক ফান্ড ট্রান্সফার ব্যবস্থা NPSB ব্যবহার করে এই কার্ডে তাৎখনিক টাকা ডিপোজিট করা যায়।

আমি সিটি ব্যাংক এর সিটিটাচ এপ থেকে NPSB করে পরীক্ষামুলক ১০০ টাকা এই কার্ডে সফলভাবে ডিপোজিট করেছি।

এই কার্ডের তথ্য ব্যবহার করে কোন দেশীয় কিংবা বিদেশী অনলাইন সাইট থেকে অনলাইনে ই-কমার্স ট্রাঞ্জেকশান পেমেন্ট সম্পন্ন কোন কেনা-কাটা করা যাবে না, যেহেতু কার্ডটির কোন এক্সপায়ার ডেইট নেই।
তবে কার্ডটির পেছনে ৩ সংখ্যার CVV/CVC নাম্বার আছে।
এটা কেন দেয়া, কি জানি!!!

বিদেশে অবস্থান করা কেউ বিদেশ থেকে এই কার্ডে রেমিটেন্স পাঠাতে কার্ডের যা যা তথ্য প্রদান করতে হয়ঃ

কার্ড ব্যবহারকারীর নাম,
একাউন্ট নাম্বারঃ কার্ডে থাকা ১৬ ডিজিট নাম্বার,
সাউথইষ্ট ব্যাংক লিমিটেড,
কার্ড ডিভিশন,
হেড অফিস,
ঢাকা,
বাংলাদেশ।

Please Share This Post in Your Social Media

See More News Of This Category

Site Customized By NewsTech.Com

About Contact Disclaimer Privacy Policy T / C

© All rights reserved Nbc Bangla 2021